বৃহস্পতিবার, ২১ সেপ্টেম্বর ২০১৭

ক্রিকেট

টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক জয়

টেস্টে অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক জয়

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ঢাকা টেস্ট জয়ের জন্য তৃতীয় দিন শেষে স্বাগতিক বাংলাদেশের প্রয়োজন ছিল৮ উইকেট, অন্যদিকে অস্ট্রেলিয়ার দরকার পড়ে ১৫৬ রানের। শেষঅবধি এই পরীক্ষায় পাশ করলো বাংলাদেশে। অস্ট্রেলিয়ার সঙ্গে প্রথম টেস্টে ঐতিহাসিক জয় পেল বাংলাদেশ টাইগার বাহিনী। ২০ রানের জয় পেয়েছে সাকিব’রা।

চতুর্থ দিনের সকালটা রোমাঞ্চের ডালা সাজিয়ে বসে। প্রথম ঘণ্টায় ডেভিড ওয়ার্নার আর স্টিভ স্মিথ ৬৫ রান তুলে ম্যাচ থেকে প্রায় ছিটকে দিয়েছিলেন বাংলাদেশকে। কিন্তু শেষ এক ঘণ্টায় অস্ট্রেলিয়ার ৫ উইকেট তুলে নিয়ে মিরপুরে এখন জয়টা খুব কাছেই দেখে বাংলাদেশ। 

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের ২৬০ রানের জবাবে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১৮

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের ২৬০ রানের জবাবে অস্ট্রেলিয়ার সংগ্রহ ৩ উইকেটে ১৮

প্রথম ইনিংসে বাংলাদেশের ২৬০ রানের জবাবে ব্যাটিংয়ে নেমে প্রথম ইনিংসে তিন উইকেটে ১৮ রান করে দিনের খেলা শেষ করেছে অস্ট্রেলিয়া। ব্যাটিংয়ে নেমে মাত্র ১৪ রানে তিন উইকেট হারায় অস্ট্রেলিয়া। দলীয় ৯ রানে অস্ট্রেলিয়ার ইনিংসে প্রথম আঘাত হানেন মেহেদি হাসান মিরাজ। ষষ্ঠ ওভারের তৃতীয় বলে ডেভিড ওয়ার্নারকে (৮) এলবিডব্লুর ফাঁদে ফেলেন তিনি।

পরের ওভারের প্রথম বলে রান আউট হয়ে সাজঘরে ফেরেন ওসমান খাজা। একই ওভারের শেষ বলে সাকিব আল হাসান এলবিডব্লুর ফাঁদে ফেলেন নাথান লিয়ন। তিন ব্যাটসম্যানের কেউই দুই অঙ্ক ছূঁতে পারেননি। দিনশেষে রেনশো ৬ ও অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ ৩ রান নিয়ে অপরাজিত রয়েছেন।

বাংলাদেশ অষ্ট্রেলিয়া টেষ্ট: সাকিব-তামিমে লড়ছে বাংলাদেশ

বাংলাদেশ অষ্ট্রেলিয়া টেষ্ট: সাকিব-তামিমে লড়ছে বাংলাদেশ

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ঢাকা টেস্টে টস জিতে ব্যাট করছে বাংলাদেশ। ব্যাট করতে নেমে ৪ ওভারে স্কোর বোর্ডে ১০ রান যোগ করতেই টাইগারদের তিনজন প্রথম সারির ব্যাটসম্যান সাজঘরে। দলের হয়ে হাল ধরলেন ক্যারিয়ারের পঞ্চাশতম টেস্ট ম্যাচ খেলতে নামা তামিম-সাকিব।

অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে মিরপুর টেস্টে দুজন মাঠে নেমেই ফিফটি করেছেন। সাকিব আল হাসান ও তামিম ইকবাল। দুজনই এদিন টেস্ট ক্রিকেটে ৫০ তম ম্যাচ খেলছেন। শুধু খেলছেনই না বাংলাদেশকে বড় বিপদ থেকে উদ্ধারও করেছেন। লাঞ্চের আগে বাংলাদেশ ৯৬ রান তুলেছে ৩ উইকেট হারিয়ে। তাঁর আগে সকালে ১০ রানে ৩ উইকেট হারিয়ে কাঁপছিল বাংলাদেশ।

৫০তম টেস্ট : সাকিব ৫০

৫০তম টেস্ট : সাকিব ৫০

সাকিব আল হাসান অপেক্ষায় ছিলেন ৫০তম টেস্ট খেলার। সেই অপেক্ষা ঘুঁচলো রোববার (২৭ আগস্ট) সকালে। বহুল প্রতীক্ষিত টেস্টের শুরুতেই সৌম্য সরকার, ইমরুল কায়েস ও সাব্বির রহমানের দ্রুত প্যাভিলিয়নে ফিরে আসার পর হাল ধরতে মাঠে নামেন সাকিব।

ব্যাট হাতে সাড়ে তিন হাজার রান আর বল হাতে ১৭৬ উইকেট। পরিসংখ্যানই বলছে, সাকিব আল হাসান বাংলাদেশের সর্বকালের সেরা ক্রিকেটার। আর একবার নিজের সক্ষমতার পরিচয় দিলেন এই ক্রিকেটার। নিজের পঞ্চাশতম টেস্টে দারুণ এক হাফ সেঞ্চুরি করেছেন এই বাঁহাতি ব্যাটসম্যান। তার চেয়ে বড় কথা, অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্টের প্রথম ইনিংসে ১০ রানে তিন উইকেট হারানো বাংলাদেশ দলকে লড়াইয়ে ফিরিয়েছে সাকিবের ব্যাট।

টেস্ট সিরিজ: বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া ১১ বছর পর মুখোমুখি

টেস্ট সিরিজ: বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া ১১ বছর পর মুখোমুখি

দীর্ঘ ১১ বছর পর আগামী ২৭ আগস্ট টেস্ট সিরিজে মুখোমুখি হবে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া। সর্বশেষ ২০০৬ সালে দ্বিপাক্ষিক টেস্ট সিরিজ খেলেছিলো দু’দল। এখন পর্যন্ত দু’টি টেস্ট সিরিজ খেলেছে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া। প্রথমটি হয় অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে। আর দ্বিতীয় অনুষ্ঠিত হয় বাংলাদেশের মাটিতে ২০০৬ সালে। 

২০০৩ সালে প্রথম টেস্ট সিরিজ খেলে বাংলাদেশ ও অস্ট্রেলিয়া। অসিদের মাটিতে অনুষ্ঠিত ঐ সিরিজে ২-০ ব্যবধানে হারে বাংলাদেশ। ডারউইনের ঐ সিরিজের প্রথম টেস্ট ইনিংস ও ১৩২ রানের ব্যবধানে জিতেছিলো অস্ট্রেলিয়া। সিরিজের দ্বিতীয় টেস্টেও বড় ব্যবধানে হারে বাংলাদেশ। ইনিংস ও ৯৮ রানের ব্যবধানে জয় পায় অসিরা। 

‘বাংলাদেশ বিপজ্জনক দল’- অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ

‘বাংলাদেশ বিপজ্জনক দল’- অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ

বাংলাদেশ ইতোমধ্যে প্রমাণ করেছে, উপমহাদেশের কন্ডিশনে বাইরের দলগুলোর জন্য, এমনকি উপমহাদেশের শ্রীলঙ্কার মতো দলের জন্যও তারা ভয়ঙ্কর একটা দল। এই ব্যাপারটা মাথায় নিয়েই আসছেন অস্ট্রেলিয়ার অধিনায়ক স্টিভেন স্মিথ। তিনি বলছিলেন, ‘গত বছর দুয়েকে বাংলাদেশ খুবই উল্লেখযোগ্য উন্নতি করেছে। বিশেষ করে হোমে খেলার ব্যাপারে। তারা গত বছর ইংল্যান্ডকে নক আউট করে দিয়েছে। বাংলাদেশ অবশ্যই একটা ভয়ঙ্কর দল।’

বাংলাদেশ নিয়ে কথা বলার পাশাপাশি স্মিথ খুব উৎসাহ দেখিয়েছেন অ্যাস্টন অ্যাগারকে নিয়ে। স্টিভেন স্মিথের নিজের গল্পটাও প্রায় এমন ছিল। লোয়ার অর্ডার ব্যাটসম্যান, মূলত স্পিনার হিসেবে শুরু করেছিলেন ক্যারিয়ার। আস্তে আস্তে হয়ে উঠেছেন সময়ের সেরা ব্যাটসম্যানদের একজন। এখন অস্ট্রেলিয়া দলে সেই দশা কাটছে অ্যাস্টন অ্যাগারের। স্পিনার পরিচয়ে দলে আসা অ্যাগার ইতোমধ্যে ১১ নম্বরে সর্বোচ্চ টেস্ট ইনিংসটা খেলার বিশ্বরেকর্ডও করে ফেলেছেন। তার অধিনায়ক স্মিথ মনে করেন, একদিন তাকে ছাড়িয়ে যাওয়ার ক্ষমতা আছে অ্যাগারের।

মেয়েদের বিশ্বকাপের ফাইনালে শক্তিশালী ইংল্যান্ডের সামনে আত্মবিশ্বাসী ভারত মুখোমুখি

মেয়েদের বিশ্বকাপের ফাইনালে শক্তিশালী ইংল্যান্ডের সামনে আত্মবিশ্বাসী ভারত মুখোমুখি

ভারত এর আগে কখনোই মেয়েদের বিশ্বকাপ জেতেনি। ২০০৫ সালে দক্ষিণ আফ্রিকার মাটিতে ফাইনালে উঠেও শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে ৯৮ রানের পরাজয় বরণ করতে হয় দলটিকে। অন্যদিকে, ইংল্যান্ডের মেয়েরা তিনবার জিতেছে বিশ্বকাপ। খেলেছে ছয়টি ফাইনাল।

বিশ্বকাপের ফাইনালে আজ লর্ডসে মুখোমুখি হবে এই দুই দল— স্বাগতিক ইংল্যান্ড ও উপমহাদেশের দল ভারত। কাগজে-কলমে এগিয়ে ইংলিশরাই। নিজেদের চতুর্থ বিশ্বকাপ শিরোপা জয়ে ফেভারিট হিসেবেই মাঠে নামবে ইংলিশরা। তবে সেমিফাইনালে শক্তিশালী অস্ট্রেলিয়াকে হারিয়ে ফাইনাল নিশ্চিত করায় আত্মবিশ্বাসের তুঙ্গে থাকা ভারতের  বিপক্ষে তাদের কঠিন পরীক্ষা দিতে হবে।

 মিডল অর্ডার ব্যাটসম্যান হারমানপ্রিত কাউরের অপরাজিত ১৭১ রানের পর বোলারদের সুশৃঙ্খল বোলিংয়ের সুবাদে সেমিফাইনালে ছয় বারের চ্যাম্পিয়ন অস্ট্রেলিয়াকে ৩৬ রানে হারিয়ে ফাইনালে ওঠে ভারত।